ঢাকা, বুধবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২৪
ডাস্ট এলার্জি সমস্যা থাকলে

ডাস্ট এলার্জি সমস্যা থাকলে খাবারে যা রাখবেন

Desk | আপডেট : ২ নভেম্বর, ২০২০ ১৩:৫২
ডাস্ট এলার্জি সমস্যা থাকলে খাবারে যা রাখবেন

এলার্জি শব্দটার সাথে আমরা সবাই-ই কম বেশি পরিচিত। আর ডাস্ট এলার্জিতে ভোগে না এমন মানুষ খুব কমই আছে। অনেকের সিজনাল ডাস্ট এলার্জি অর্থাৎ শীতকালে বাতাসের শুষ্কতার কারণে ডাস্ট এলার্জি বেশি হয়। আবার অনেকে সারাবছরই এই সমস্যায় পরেন। রাস্তাঘাটের ধুলাবালি, ঘরদোর পরিষ্কার করতে গিয়ে ডাস্ট এলার্জির শিকার হন অনেকেই। ডাস্ট অ্যালার্জির কারণে হাঁচি, কাশি ছাড়াও চোখ-নাক থেকে অনবরত জল পড়ার সমস্যা, শ্বাসকষ্ট বা ত্বকে র‌্যাশও দেখা দিতে পারে। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া মুঠো মুঠো অ্যান্টি অ্যালার্জি ওষুধ খাওয়া বিপজ্জনক হতে পারে! তাই ডাস্ট অ্যালার্জির সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে অ্যান্টি অ্যালার্জি ওষুধের বিকল্প হিসাবে কয়েকটি ঘরোয়া টোটকা কাজে লাগিয়ে দেখতে পারেন। আজকের লেখায় তাই আমরা আপনাদের জানাবো ডাস্ট এলার্জি সমস্যা থাকলে খাবারে যা রাখবেন  সে ব্যাপারেই কিছু টিপস।

আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক ডাস্ট এলার্জি সমস্যা থাকলে খাবারে যা রাখবেনঃ

১। বেশি করে সবুজ শাক-সবজি খাওয়া। সবুজ শাক-সবজি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর সঙ্গে অ্যালার্জির প্রবণতা কমাতেও সাহায্য করে। সবুজ শাক-সবজি শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় ভিটামিন, খনিজের (মিনারেল) যোগান দেয়।
২। ডাস্ট অ্যালার্জির সমস্যায় ঘি খেয়ে দেখা যেতে পারে। ফল পাওয়া যাবে ম্যাজিকের মতো। ঘি প্রাকৃতিকভাবে যে কোনো ধরনের অ্যালার্জির সমস্যার সঙ্গে লড়াই করতে সক্ষম। এক চামচ ঘি তুলোয় লাগিয়ে সরাসরি র‌্যাশে আক্রান্ত ত্বকে লাগান। ত্বকের জ্বালা ভাব, অস্বস্তি অনেকটাই কমে যাবে। প্রতিদিন ১ চামচ করে ঘি খেতে পারলে ঠাণ্ডা লাগা বা অ্যালার্জির সমস্যায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি অনেকটাই কমবে।
৩। ডাস্ট অ্যালার্জির সমস্যায় গ্রিন টি খাওয়া যেতে পারে। গ্রিন টি-এর অ্যান্টি অক্সিড্যান্ট উপাদান অ্যালার্জির সমস্যার সঙ্গে লড়তে সাহায্য করে। চোখে লাল ভাব, র‌্যাশ বেরনো ইত্যাদি রুখতে এটি অত্যন্ত কার্যকর।
৪। খাওয়ার পাতে রাখুন টক দই, ছানা, লস্যি। এদের প্রোবায়োটিক উপাদান অসুখের জীবাণুর সঙ্গে যেমন লড়ে, তেমনই শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। সুতরাং, ধুলোবালি থেকে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কমে।

এছাড়াও মাথা যন্ত্রণা, বন্ধ নাক, চোখ-নাক দিয়ে পানি পড়া ইত্যাদির সমস্যায় একটি পাত্রে গরম পানি নিয়ে তার মধ্যে কয়েক ফোঁটা ইউক্যালিপটাস তেল ফেলে তার ভাপ (ভেপার) নিন। এতে বন্ধ নাক খুলে যাবে, নাকের ভিতরে অ্যালার্জির কারণে হওয়া অস্বস্তিও কমে যাবে।

উপরে