ঢাকা, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
শুষ্ক কাশির জন্য ঘরোয়া চিকিৎসা

শুষ্ক কাশির জন্য ঘরোয়া চিকিৎসা

Desk | আপডেট : ১৪ অক্টোবর, ২০২০ ০৯:৩১
শুষ্ক কাশির জন্য ঘরোয়া চিকিৎসা

ঋতু পরিবর্তন হচ্ছে। এ সময়ে অনেকেই খুসখুসে কাশির যন্ত্রণায় ভোগেন। যা খুবই বিরক্তিকর ও বিব্রতকর অসুখ। এছাড়া বর্তমানে বিশ্বজুড়ে চলছে ভয়াবহ মহামারি করোনাভাইরাসের আক্রমণ। এ ভাইরাসেরও প্রধান লক্ষণ কাশি। অনেকেই কাশি হলে দুশ্চিন্তায় পড়ছেন, করোনায় আক্রান্ত হলেন কিনা?
চিন্তা নেই আজকের লেখায় আমরা তাই আপনাদের জানাবো শুষ্ক কাশির জন্য ঘরোয়া চিকিৎসা।

আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক শুষ্ক কাশির জন্য ঘরোয়া চিকিৎসাঃ

১। গরম পানি পান করুন। শরীরের মেটাবলিজম রেট বাড়ে এতে। আর সহজেই সারিয়ে দেয় শুকনো কাশি। দিনে তিনবার গরম পানি পান করুন, কাশি প্রায় সেরে যাবে। সঙ্গে একটু লবণ দিয়ে গার্গল করে দেখুন।

২। আধ চামচ পেঁয়াজের রসে ছোট চামচের ১ চামচ মধু মিশিয়ে দিনে দু’বার করে খান। গরম এক কাপ আদা চা খান। আদায় অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়া ও অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি গুণ আছে।

৩। মধু শুষ্ক কাশির মহৌষধ। এক চামচ মধুর সঙ্গে আদার রস মিশিয়ে দিনে একবার করে খান। কাশি অবশ্যই সেরে যাবে।

৪। তুলসী পাতার রস করে তাতে মধু আর আদার রস মিশিয়ে দিনে দু’বার করে খান। কাশি সেরে যাবে। গরম পানির ভাপ নিলে দ্রুত কষ্ট লাঘব হবে। দিনে যেকোনো সময় এটা করতে পারেন।

৫। যষ্টিমধুও মুক্তি দেয় শুকনো কাশি থেকে। ২ বড় চামচ যষ্টিমধুর শুকনো মূল একটি মগে রেখে তাতে গরম পানি ঢালুন। দিনে দু’বার ভাপ নিন ১০ থেকে ১৫ মিনিট করে।

৬। ঘিয়ে ভেজে নিন গোলমরিচের গুঁড়া। তারপর খেয়ে ফেলুন। এতে খুব দ্রুত সেরে যায় কাশি।

৭। এক গ্লাস দুধে আধ চামচ হলুদ মিশিয়ে প্রতিদিন পান করুন। এক কাপ পানিতে ২ থেকে ৩ কোয়া রসুন ফেলে গরম করুন। একটু ঠান্ডা করে মধু মিশিয়ে খেয়ে ফেলুন।

সাধারণ কাশি ঘরোয়া চিকিৎসা নিলে ও ঠিকমতো খাওয়াদাওয়া করলে ৮ তেকে ১০ দিনে সেরে যায়। কিন্তু ২ থেকে ৩ সপ্তাহেও কাশি না সারলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

উপরে