ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে, ২০১৯
ওজন কমানোর কিছু কার্যকরী টিপস

মেয়েদের ওজন কমানোর কিছু কার্যকরী টিপস

20Fours Desk | আপডেট : ১৬ মার্চ, ২০১৯ ০৭:৪৮
মেয়েদের ওজন কমানোর কিছু কার্যকরী টিপস
ধীরে ধীরে মোটা হয়ে যাচ্ছেন ৷ কিংবা কিছুতেই রোগা হতে পারছেন না আপনি ৷ বিশেষ করে মেয়েরা তাদের স্বাস্থ্য সহজে কমাতে পারেনা। বিভিন্ন কারণে মেয়েদের ওজন বাড়তে পারে। বংশীয়, হরমন জনিত সমস্যা, অতিরিক্ত খাওয়া এবং ঘুমানো, বিয়ে পরবর্তী সময়ে জীবনযাত্রা পরিবর্তনেও মেয়েরা মোটা হতে পারে। অতিরিক্ত ওজন মানেই শুধু শারীরিক ভার বহনে বাড়তি ঝামেলা নয়। অসুস্থ হওয়ার সম্ভাবনাও বেড়ে যায়। গবেষণায় দেখা গেছে, শারীরিকভাবে ফিট মেয়েদের তুলনায় মোটা মেয়েদের অসুস্থ হওয়ার সম্ভাবনা ৬৬ ভাগ বেশি। তাই আজকের লেখাতে থাকছে  মেয়েদের ওজন কমানোর কিছু কার্যকরী টিপস।
 
চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক মেয়েদের ওজন কমানোর কিছু কার্যকরী টিপসঃ
 
(১) দিনের প্রতিবার খাবারে প্রোটিন, ফ্যাট এবং অল্প কার্বহাইড্রেড যুক্ত সবজি রাখুন। এগুলো আপনাকে সুস্থ,সবল রাখার পাশাপাশি ওজন কমাতে সাহায্য করবে। মাংস, মাছ, সামুদ্রিক খাবার, ডিম, দুধ এসব খাবারে প্রোটিন থাকে। নিয়মিত এসব খাবার খান। তবে উচ্চ মাত্রায় ক্যালরি থাকার কারণে লাল মাংস না খাওয়াই উত্তম। এছাড়া অল্প কার্বোহাইড্রেড যুক্ত সবজিগুলোর মধে, ব্রোকলি, ফুলকপি, পালংশাক, বাঁধাকপি, শিম, লেটুস, শসা, গাঁজর, ইত্যাদি খেতে পারেন। এসব সবজি বেশি বেশি খাবেন। এতে কোন ক্ষতি নেই। ওজন কমানোর জন্য মাংস এবং সবজি যোগে খাওয়া খাবারে থাকে ফাইবার, ভিটামিন, মিনারেলস যা সুস্বাস্থ্যের জন্য জরুরী। রাতের খাবারে সবজির আইটেম দিয়েই শেষ করুন। এছাড়াও প্রায় সব ফলমূলে এসব পুষ্টিগুণ আছে। তাই হালকা খাবারের সময় ফলমূল খান।
 
(২) মিষ্টি জাতীয় খাবার গুলো শরীর ইন্সুলিনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। ইন্সুলিন হল শরীরে চর্বি সংরক্ষণ করার প্রধান হরমন। দেহে ইনসুলিন বেড়ে গেলে হজম প্রক্রিয়া ধীর হয়ে যায়। ফলে দৈনন্দিন খাওয়া খাবার গুলো শরীরে থেকে যায় এবং ওজন বাড়িয়ে দেয়। অন্যদিকে ইনসুলিনের মাত্রা কমে গেলে তাড়াতাড়ি খাবার হজম হতে থাকে এবং শরীর থেকে চর্বি কমতে থাকে। খাবার থেকে সুগার এবং কার্বোহাইড্রেড বাদ দিলে ইনসুলিনের মাত্রা কমে আসে।
 
(৩)  ডায়েট মানেই অনেকেই মনে করেন না খেলেই বোধহয় ওজন কমে যাবে। এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। না খেয়ে থাকলে ওজন কমবে না বরং অসুস্থ হয়ে যাবেন। তাই দিনে ৩-৪ বার খেতে হবে। তবে পেট ভরে খাওয়া যাবে না।  আর পরিমাণ মতো পানি খেতে হবে।
 
(৪) ঘুম মানবদেহের গুরুত্বপূর্ণ কাজ। এটা শরীর, মন, অনুভূতিকে প্রভাবিত করে। সারাদিনে খাওয়া খাবারের পুষ্টিগুণগুলো ঘুমের মধ্যে দেহের প্রয়োজনীয় অঙ্গ-প্রত্যঙ্গে গিয়ে তাদের কর্মক্ষম করে। তাই একজন পূর্ণবয়স্ক নারীর দিনে ৭-৮ ঘণ্টা ঘুমানো উচিত। ঘুম কম হলে শরীর খারাপ হয়, মন খারাপ থাকে, মাথাব্যাথা হতে পারে, কাজে অনিচ্ছা জাগে, নানা দুশ্চিন্তা এসে ভর করে। এগুলো মেয়েদের ওজন কমানোর জন্য প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে।
 
এছাড়াও ঘরে বসে বা আশেপাশে খোলা মাঠেও ব্যায়াম করতে পারেন। বাইরে হাঁটতে যেতে পারেন এবং ঘরে স্কিপিং করতে পারেন। নিয়মিত এগুলো করলেই ওজন কমতে বাধ্য

উপরে