ঢাকা, বুধবার, ২৪ জুলাই, ২০১৯
স্মৃতিশক্তি প্রখর করে আপেল জুস

স্মৃতিশক্তি প্রখর করে আপেল জুস

20Fours Desk | আপডেট : ৯ জুলাই, ২০১৯ ১১:১৬
স্মৃতিশক্তি প্রখর করে আপেল জুস

আমাদের আশে পাশে এমন কিছু ফল রয়েছে যা আমাদের নানান উপকার করে থাকে তেমনি আপেলের জুস আপনার ওজন কমাতে  সাহায্য করবে, তাই আজকের লেখায় জানবো  ওজন কমাতে  আপেল জুস এর উপকারীতার কথা।  আপেল ছোট-বড় সবার পরিচিত এবং প্রিয় একটি ফল। আপেলের অনেক গুণ, এটি শরীরের রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বাড়াতে কাজ করে। নিয়মিত আপেল খেলে এ রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা অনেকটা কমে যায়। ইংরেজিতে একটি প্রবাদ আছে, এন এ্যাপেল আ ডে কিপ দ্য ডক্টর অ্যাওয়ে। অর্থ, নিয়মিত আপেল খেলে চিকিৎসকের প্রয়োজন হয় না।আমাদের মাঝে অনেকেই আছেন যারা আপেল চিবিয়ে খেতে পছন্দ করেনা, তাই তাদের জন্য রয়েছে আপেলের জুস।

 
চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক ওজন কমাতে আপেল জুসের উপকারিতার কথাঃ
 
আপনি যদি অনিয়ন্ত্রিতভাবে মোটা হয়ে যান, শরীরে যদি অতিরিক্ত মেদ জমতে থাকে বা উচ্চতানুযায়ী আপনার ওজন বেড়ে যায় তবে নিয়মিত আপেল জুস খেলে আপনার শরীরের অতিরিক্ত মেদ কমে যাবে। কারণ এটি সম্পুর্ণভাবে ফ্যাটমুক্ত বলে মনে করেন চিকিৎসাবিদরা।
 
এছড়াও আরোও কিছু উপকার পাবেন নিয়মিত আপেল জুস পান করলে যেমন-

দেহে শক্তি বৃদ্ধি করে:

 

আপেল জুসে রয়েছে ভিটাইন এ, ভিটামিন সি, ভিটামিন ই, এবং ভিটামিন কে। তাই এতসব উপাদান একই সঙ্গে আপেল জুসে থাকায় তা আপনার শরীরের শক্তি বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

স্মৃতিশক্তিকে প্রখর করে:

বিভিন্ন ধরণের গবেষণায় দেখা যায়, আপেল জুস খেলে বৃদ্ধ বয়সে কোন জিনিসকে আপনার ভুলে যাওয়ার প্রবণতাকে কমিয়ে দেয়। একই সঙ্গে এই জুস আপনার স্মৃতিশক্তিকে আরও বৃদ্ধি করে দেয়। ফলে মানুষ কোনো বিষয়কে দীর্ঘদিন মনে রাখতে পারে।

দৃষ্টি শক্তি বৃদ্ধি করে:

আপেল জুসে যেহেতু প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ সমৃদ্ধ থাকে সেহেতু এটি মানুষের দৃষ্টিশক্তিকে বাড়িয়ে দেয়। অন্যদিকে ভিটামিন এ চক্ষুরোগ মুক্তি দেয়।

এছাড়াও রক্তের চর্বির (কোলেস্টেরল) মাত্রা কমায় আপেল জুস। নিয়ন্ত্রণে রাখে ডায়াবেটিক রোগীর রক্তে সুগারের মাত্রা। ফলে কমে যায় হৃদরোগের ঝুঁকিও ।

উপরে