ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর, ২০১৮
নিয়মিত মিষ্টি আলু খাচ্ছেন তো?

নিয়মিত মিষ্টি আলু খাচ্ছেন তো?

| আপডেট : ৫ নভেম্বর, ২০১৮ ১৯:৩৬
নিয়মিত মিষ্টি আলু খাচ্ছেন তো?

মিষ্টি আলু আমাদের সবার পরিচিত এবং অনেক পছন্দের একটি সবজি। অনেকেই একে রাঙ্গা আলু নামেও চিনে থাকেন। দেখতে একটু লম্বাটে এবং খেতে হালকা মিষ্টি স্বাদের হওয়ায় একে মিষ্টি আলু বলা হয়ে থাকে। বেগুনী, লাল, হালকা হলুদ অথবা সাদা রঙের হয়ে থাকে এই মিষ্টি আলু। বিভিন্ন  উপকারি সব খনিজ উপাদান এবং ভিটামিনে ভরপুর এই আলু কিন্তু আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকারি। প্রায় ৮ হাজার বছর আগে থেকে এই আলু খাওয়া হয়। এ থেকে বোঝাই যাচ্ছে সেই প্রাচীনকাল থেকেই মানুষ এই আলু খেয়ে আসছে। এটি খেলে আমাদের পেট দীর্ঘক্ষণ ভরা থাকে এবং আমাদের অনেক এনার্জি প্রদান করে। এছাড়াও নানাভাবে এই আলু আমাদের অনেক উপকার করে থাকে। আসুন জেনে নিই মিষ্টি আলু খেলে আমাদের কি কি উপকার হয়ে থাকে।

মিষ্টি আলুর উপকারিতাঃ

 ১। মিষ্টি আলুতে ভিটামিন ডি কমপ্লেক্স থাকায় এটি আমাদের ত্বক ভালো রাখে। এটি আমাদের ব্রণ দূর করে থাকে। এছাড়াও এতে আয়রন, জিংক ও সেলেনিয়াম থাকায় এটি আমাদের চুলকে শক্তিশালী করে। চুলের ফলিকল মসৃণ করে ও দ্রুত বড় হতে সাহায্য করে মিষ্টি আলু। নিয়মিত মিষ্টি আলু খেলে শরীরে জিঙ্ক, ক্যালসিয়াম ও সেলেনিয়ামের মতো উপাদান যুক্ত হয়। এটি হরমোন ও অক্সিজেনের ভারসাম্য রক্ষা করে আমাদের ত্বককে ঠান্ডা করে  এবং ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বাড়াতে সাহায্য করে।

২। মিষ্টি আলুতে আছে পটাসিয়াম, সেলেনিয়াম, সালফার, কপার এবং ম্যাগনেসিয়ামের মত বেশ কিছু উপকারী উপাদান। যা আমাদের চোখের জন্য অত্যান্ত উপকারী। তাই মিষ্টি আলু খেলে আমাদের দৃষ্টিশক্তির অনেক উন্নতি হয় এবং একই সাথে রাতকানা রোগ থেকে চিরতরে রেহাই পাওয়া যায়। এছাড়াও চোখের এলার্জি সহ অন্যান্য চোখের রোগের প্রকোপ কমাতে মিষ্টি আলু অনেক কার্যকরী।

৩। মিষ্টি আলু আমাদের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। এটি খেলে আমাদের শরীরের ভেতরে নাইট্রেটের পরিমাণ বেড়ে যায়, যা প্রাকৃতিক উপায়ে আমাদের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। এছাড়াও এতে থাকা পটাশিয়াম আমাদের কোষ ও রক্তরসের জন্য দরকারি উপাদান হিসেবে কাজ করে। একইসাথে এটি আমাদের হৃৎস্পন্দনকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।

৪। মিষ্টি আলুতে থাকা ফাইবার বা খাদ্য আঁশ আমাদের হজম শক্তি বাড়িয়ে থাকে । এর ফলে গ্যাস বা অ্যাসিডিটির পরিমাণ কমে যায়। এছাড়াও ফাইবার আমাদের মুখের ব্রণ কমাতে সাহায্য করে এবং আমাদের ত্বককে মসৃণ রাখে। মিষ্টি আলু পাকস্থলীতে অনেক বেশি পিত্তরস শোষণ করতে পারে যা শরীরের খারাপ কোলেস্টেরলের(এলডিএল)মাত্রা কমাতে সাহায্য করে। এভাবেই কার্ডিওভাস্কুলার রোগের ঝুঁকি কমাতেও সাহায্য করে মিষ্টি আলু।

৫। মিষ্টি আলুতে আছে খাদ্যশক্তি । যা আমদের দেহ গঠনে যথেষ্ঠ সাহায্য করে। এছাড়াও এতে থাকা ভিটামিন বি এবং নানা উপকারী খনিজ উপাদান আমাদের দেহ গঠন এবং আমাদের কোষকলার সুস্থ্যতায় সাহায্য করে। এছাড়াও এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট শরীরে উপস্থিত ফ্রি রেডিকালদের ক্ষতি করার ক্ষমতাকে কমিয়ে দেয়। ফলে কোষের বিন্যাসে পরিবর্তন হয়ে ক্যান্সার সেলের জন্ম নেওয়ার আশঙ্কা হ্রাস পায়।

উপরে