ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৮
ঢাকার চলচ্চিত্র স্টুডিও

ঢাকার সেকালের চলচ্চিত্র স্টুডিও

| আপডেট : ৯ নভেম্বর, ২০১৭ ১৩:১৯
ঢাকার সেকালের চলচ্চিত্র স্টুডিও

আমাদের বয়োজ্যেষ্ঠরা হয়ত এসবের সবগুলো সম্পর্কেই জানেন। ঢাকার চলচ্চিত্রের সাথে সেকালের কিছু স্টুডিও সম্পর্কে আজ বলব।

১৯৪৯ সালের জানুয়ারি মাসে ঢাকায় প্রথম প্রাইভেট স্টুডিওর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়। এটি ছিল ক্যাপ্টেন এসএএইচ জায়েদীর ‘জায়েদী স্টুডিও’। স্টুডিওটি আর প্রতিষ্ঠা পায়নি।

১৯৫১ সালে ঢাকায় ‘ন্যাশনাল স্টুডিও অ্যান্ড সিনে ল্যাবরেটরি’ নামে আরেকটি প্রতিষ্ঠানের জন্ম হয়। তবে এর কার্যক্রমও পূর্ণাঙ্গ রূপ পায়নি।

১৯৫৪-৫৫ সালে ঢাকার তেজগাঁও এলাকায় তৎকালীন পূর্ব বাংলা সরকারের উদ্যোগে ফিনাকা স্টুডিও এবং ল্যাবরেটরি প্রতিষ্ঠিত হয়। এটি নিয়ে বিস্তারিত কিছু পাইনি।

১৯৫৭ সালে সরকারি উদ্যোগে ঢাকায় এফডিসি প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর বেশ কয়েকটি প্রাইভেট স্টুডিও গড়ে ওঠে। এর মধ্যে ষাটের দশকে প্রথম প্রতিষ্ঠিত হয় ইস্টার্ন থিয়েটার। এ স্টুডিওটির ইতিহাস বিস্তারিত জানা যায়নি। ষাট থেকে আশির দশক পর্যন্ত ঢাকায় যেসব প্রাইভেট ফিল্ম স্টুডিও গড়ে উঠেছিল , তার কয়েকটি সম্পর্কে নিম্নে দেয়া হলো।

বেঙ্গল স্টুডিও
বেঙ্গল মোশন পিকচার্স স্টুডিও লিমিটেড নামে ১৯৬৯ সালে টিকাটুলি এলাকার কেএম দাস লেনের রোজ গার্ডেনে প্রতিষ্ঠিত হয়। ৮ বিঘা জমির ওপর পুরোনো জমিদার বাড়ি, বিশাল পুকুর ও বাগান শোভিত এ স্টুডিওর অন্যতম উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা বজলুর রহমান ১৯৭২ সালে এককভাবে মালিকানা গ্রহণ করেন। এ স্টুডিওতে প্রধানত শুটিং, ডাবিং ও সীমিত পরিসরে সম্পাদনার কাজ করা হতো। এখানে শতাধিক ছবি নির্মিত হয়। তবে এই স্টুডিওটি নব্বই দশকের শুরুতে বন্ধ হয়ে যায়।

বারী স্টুডিও
‘বারী স্টুডিও’ ঢাকার দ্বিতীয় বেসরকারি স্টুডিও। কাওরান বাজার ও ফার্মগেট এলাকার পূর্ব তেজতুরী বাজারে এটির অবস্থান ছিল। এর প্রতিষ্ঠাতা চলচ্চিত্র ব্যবসায়ী এমএ বারী। তিনি মগবাজার এলাকায় ষাটের দশকের প্রারম্ভে ইস্টার্ন থিয়েটার নামে একটি স্টুডিও স্থাপন করেন। ১৯৬৮ সালের দিকে সরকারি নির্দেশে এ স্টুডিও বন্ধ হয়ে গেলে ১৯৭০ সালে বারী স্টুডিও স্থাপন করেন। ষাট থেকে আশির দশক পর্যন্ত প্রায় ২০০ ছবির নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয় এখানে। পরবর্তীতে চলচ্চিত্র নির্মাণে ভাটা ও ব্যবসা পরিবর্তনের কারণে ১৯৯০ সালে বারী স্টুডিও বন্ধ করে দেওয়া হয়।

পপুলার স্টুডিও
এটি দেশের তৃতীয় বেসরকারি চলচ্চিত্র স্টুডিও। ঢাকার পাশের জেলা নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার পাগলা এলাকায় স্থাপিত হয়। এই স্টুডিওটির প্রতিষ্ঠাতা দেশের ৩ জন বিশিষ্ট অগ্রগামী চলচ্চিত্রকর্মী। আবদুল জব্বার খান, এ আউয়াল ও মোশাররফ হোসেন চৌধুরী ১৯৬৫ সালে স্টুডিওটি প্রতিষ্ঠা করেন। ১৬ বিঘা জমির ওপর বিরাট পুকুর, বাড়ি, বাগান, গাছ-গাছালি নিয়ে এ স্টুডিও ছিল বেশ দৃষ্টিনন্দন। এতে তখনকার অনেক ছবির শুটিং, এডিটিং ও সাদাকালো ছবির প্রসেসিং করা হতো। আশির দশকের শেষদিকে এটি বন্ধ হয়ে যায়।

ঢাকা স্টুডিও
ঢাকা স্টুডিও প্রতিষ্ঠা করেন চলচ্চিত্র প্রযোজক মালিক মাজিদ। এই চলচ্চিত্র স্টুডিওটি ষাটের দশকে ঢাকার তত্কালীন জিন্নাহ অ্যাভিনিউতে (বর্তমানে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ) প্রতিষ্ঠিত হয়। এই স্টুডিওতে শুটিং, ডাবিং ও সীমিত পরিসরে সম্পাদনার কাজ করা হতো। স্টুডিওটি এককালে চলচ্চিত্র কলাকুশলীদের বেশ পছন্দের ছিল। এখানে প্রায় ১শ’র মতো ছবি নির্মিত হয়। আশির দশকের শেষদিকে এটি বন্ধ করে দেয় মালিক পক্ষ।

টেকনিশিয়ান স্টুডিও
সত্তর দশকে রাজধানীর জিগাতলায় গড়ে ওঠে টেকনিশিয়ান স্টুডিও। চলচ্চিত্র পরিচালক ও প্রযোজক জয়নুদ্দিন আহমেদের হাতে এই চলচ্চিত্র স্টুডিওর জন্ম। এখানেও অনেক ছবি নির্মিত হয়েছে। তবে বর্তমানে এখানে শুধু লাইট ভাড়া দেওয়া হয়।

নিউ স্টার স্টুডিও
সত্তর দশকে তেজতুরী বাজার এলাকায় গড়ে ওঠে নিউ স্টার স্টুডিও। এখানেও বহু ছবির নির্মাণ কাজ হয়। স্টুডিওটি একেবারে বিলুপ্ত না হলেও বর্তমানে এখানে শুধু লাইট ভাড়া দেওয়া হয়।

সূত্র: বাংলাপিডিয়া।
দৈনিক ইত্তেফাক, ৫ জুলাই ২০১৭।
বাংলাদেশ প্রতিদিন ২৪ এপ্রিল ২০১৭।
ছবি নেট থেকে।

উপরে