ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
হজম শক্তি বাড়াতে উপকারী ৮ মশলা

হজম শক্তি বাড়াতে উপকারী ৮ মশলা

20fours Desk | আপডেট : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০৬:৪৭
হজম শক্তি বাড়াতে উপকারী ৮ মশলা

হজমশক্তি ঠিক রাখা সুস্থতার অন্যতম চাবিকাঠি। সামান্য ভারী খাবার খেলেই বদহজম হয়, পেটে 'বুডবাড' শুরু হয়ে যায়? গ্যাস হয়? নানা অনিয়মের কারণে এমন সমস্যা এখন ঘরে ঘরে। খাবার হজম হয়ে আমাদের দেহে শক্তি তৈরি হয়। কিন্তু যখন এই হজমশক্তি কমে যায় আমাদের দেহ দুর্বল হওয়া শুরু করে। পুষ্টির অভাবে শরীরে বাসা বাঁধতে শুরু করে নানা ধরনের রোগ। তাই এ বিষয়ে সবাইকে সচেতন হতে হবে।আজকের লেখায় তাই এমনি ৮ মশলার কথা জানাবো আপনাদের যা আপনাকে হজম শক্তি বাড়াতে সাহায্য করবে।

চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক হজম শক্তি বাড়াতে উপকারী ৮ মশলাঃ

১।হলুদঃ রান্নায় এর ব্যবহার না হলেই নয়। এটি শুধু তরকারির রঙ্গ সুন্দর করার জন্যই নয় বরং রোগ নিরাময়ের জন্যও ব্যবহার করা হয়। এটি একই সঙ্গে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট এবং ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া ও ছত্রাক নাশক। এছাড়া ক্যান্সার, জিনগত ত্রুটি এবং প্রদাহ প্রতিরোধও করে। হলুদ ত্বকেরও ঔজ্বল্য বাড়ায়।

২। জিরাঃ গ্যাস ও অম্বলের মতো সমস্যা থেকে রেহাই পেতে এই মশলাটির ব্যবহার অনেক পুরোনো। এতে আরো রয়েছে প্রদাহরোধী উপাদান যা পাকস্থলীর ব্যাথা এবং অস্বস্থিকর অনুভূতি দূর করে।

৩। মেথী বীজঃ এটি আঁশ এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ। যা প্রাকৃতিক হজমে সহায়ক হিসেবে কাজ করে এবং দেহ থেকে ক্ষতিকর টক্সিন বের করে দেয়। আর এর পিচ্ছিলকারী উপাদান পাকস্থলী এবং নাড়িভুড়িকে মসৃণ করে তোলে।

৪। এলাচঃ এর শক্তিশালী সুগন্ধি হজমে সহায়ক এনজাইম নিঃসরণে সহায়তা করে। বদহজম, গ্যাস এবং কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো পাকস্থলীর নানা সমস্যা দূর করতেও বেশ কার্যকর এটি। আর অন্ত্রের মধ্য দিয়ে খাদ্যের চলাচল বাড়াতে সহায়ক রাসায়নিকও রয়েছে এতে।

৫। আদাঃ হজমে সহায়ক, ব্যাথা নাশক এবং রোগ প্রতিরোধী উপাদানে সমৃদ্ধ আদা। এটি কফ ও সর্দি ভালো করে। যে কারণে শীতকালীন তরকারি, ভাজা এবং চা-তে ব্যবহার করা হয়।

৬। লবঙ্গ ঃ  এর ৬০-৯০ শতাংশই ইউজেনল অয়েল। এই তেল অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, অ্যান্টিসেপটিক, অনুভূতিনাশক এবং রক্তক্ষরণরোধী উপাদানের সমৃদ্ধ। পাকস্থলীতে গ্যাস নির্গমণ ঠেকাতে বা গ্যাস বের করে দিতে বেশ কার্যকর এটি।

৭। গোলমরিচঃ  হজম প্রক্রিয়াকে আরো সহজ করে এবং হজমে সহায়ক এনজাইমের নিঃসরণ বাড়ায়। যা প্রোটিন হজমে সহায়তা করে।

৮। দারুচিনিঃ হজম শক্তি বাড়ায় এবং পুষ্টিশোষণ প্রক্রিয়াকে শক্তিশালী করে। এটি ব্যাকটেরিয়া নাশক এবং পাকস্থলী ও অন্ত্রের সংক্রমণ রোধ করে।

এই মশলাগুলো হজম প্রক্রিয়ায় অগ্নির ভারসাম্য রক্ষা করা, বিষ বের করে দেয়া এবং বদহজম ও গ্যাস-অম্বলের মতো সমস্যা দূর করতে সহায়ক।

উপরে