ঢাকা, বুধবার, ২৪ জুলাই, ২০১৯
আর্থ্রারাইটিসের ব্যাথা

আর্থ্রারাইটিসের ব্যাথা কমাতে

20Fours Desk | আপডেট : ১১ জুলাই, ২০১৯ ০৮:২৫
আর্থ্রারাইটিসের ব্যাথা কমাতে

আর্থ্রারাইটিস হল সেই অবস্থা যখন আমাদের গাঁটের কার্টিলেজ আস্তে আস্তে শুকিয়ে আসে, শক্ত হয়ে আসে আর ক্ষয়ে যায়। এটিকে ডাক্তারি পরিভাষায় বলে অটোইমিউন ডিসওর্ডার, যার ফলে আমাদের রোগ প্রতিরোধ করে যে উপাদানগুলো সেই উপাদান শরীরের টিস্যুকেই আক্রমণ করে। এটি খুব ধীরে ধীরে শুরু হয় সামান্য যন্ত্রণা থেকে, তারপর মারাত্মক আকার নেয়। অনেক সময়ে দীর্ঘ দিন ওষুধ খেয়েও কিছু হয় না। এদিকে ওষুধ খাবার সাইড এফেক্ট হতে পারে। তাই আজকের লেখায় জানবো আর্থ্রারাইটিসের ব্যাথা কমাতে বিছুটি পাতার ব্যবহার।

সব রকমের গাঁটের ব্যাথার জন্য কিন্তু এটি অব্যর্থ। এর মধ্যে থাকা ইনফ্লেমেটরি উপাদান যেমন আর্থ্রারাইটিসের ব্যাথা কমায়, তেমনই হাড় শক্ত করে। তাই হাড় সহজে ক্ষয়ে যায় না। বিছুটি পাতার উপর এক ধরণের খসখসে রোঁয়ার মতো জিনিস থাকে। আপনি যখন এই পাতা ব্যবহার করবেন তখন এই সূক্ষ্ম রোঁয়া আপনার ত্বকের ভিতরে প্রবেশ করবে আর ব্যাথা হচ্ছে যেখানে সেখানকার নিউরোন নিস্তেজ করে দেবে। ফলে ব্যাথা কমবে।

এছাড়াও কিছু ঘরোয়া উপাদান রয়েছে, যেগুলো ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। এই উপাদানগুলো আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমাতেও উপকারী, যেমন-

১. মাছের তেলের সাপ্লিমেন্ট

মাছের তেল ওমেগা থ্রি ফ্যাটি এসিডের চমৎকার উৎস। এর মধ্যে থাকা প্রদাহরোধী উপাদানের জন্য এটি গাঁটের প্রদাহ প্রশমিত করে। গবেষণায় বলা হয়, আর্থ্রাইটিসের রোগীদের মাছের তেলের সাপ্লিমেন্ট গ্রহণ করা ভালো। আর্থ্রাইটিসের সমস্যা হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে মাছের তেলের সাপ্লিমেন্ট গ্রহণ করতে পারেন।

২. হলুদ

হলুদের মধ্যে থাকা কারকিউমিন গাঁটের প্রদাহ কমায়। তাই অস্টিওআর্থ্রাইটিস ও আর্থ্রাইটিসের রোগীরা খাদ্যতালিকায় হলুদ রাখতে পারেন। এই ক্ষেত্রে রান্নায় হলুদ ব্যবহার করুন।

৩. আদা

গবেষণায় দেখা যায়, আদা খেলে আর্থ্রাইটিসের রোগীদের ব্যথা অনেকটা কমে। আদার মধ্যে রয়েছে শক্তিশালী প্রদাহরোধী উপাদান। তাই এই খাবারটিও খাদ্যতালিকায় রাখুন।

উপরে