ঢাকা, শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল, ২০১৯
শরীরে ভিটামিনের অভাব

শরীরে ভিটামিনের অভাব বুঝবেন যেভাবে

20fours Desk | আপডেট : ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৯:২০
শরীরে ভিটামিনের অভাব বুঝবেন যেভাবে

শরীরে ভিটামিনের অভাব দেখা দিলে নানা রোগ বাসা বাঁধতে শুরু করে। ভিটামিনের অভাব মানেই রোগ প্রতিরোধ করার ক্ষমতাও কমতে থাকে। কিন্তু অনেক সময়ে বোঝা মুশকিল হয়, যে সত্যিই শরীরে ভিটামিনের অভাব রয়েছে কি না। কিন্তু চিকিৎসকরা বলছেন মানুষের শরীরে ভিটামিনের অভাব থাকলে মুখ দেখেই বলে দেওয়া যায় এছাড়াও আরো কিছু শারীরিক লক্ষণ রয়েছে যা বলে দিবে  শরীরে ভিটামিনের অভাব। আর আজকের লেখাতে আপনাদের জন্য থাকছে শরীরে ভিটামিনের অভাব বুঝবেন যেভাবে তারই কিছু লক্ষণ।

চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক শরীরে ভিটামিনের অভাব বুঝবেন যেভাবে তার লক্ষণ গুলোঃ

(১) ঠোঁট শুকিয়ে যাওয়া কিংবা ফেটে যাওয়া ঘটনা শুধু শীতকালেই ঘটে। তবে শরীরের যদি ভিটামিন বি টুয়েলভ’য়ের অভাব হলে সব ঋতুতেই এই সমস্যায় ভুগতে হবে।হাঁস-মুরগি খাওয়া বাড়ালে ভিটামিন বি টুয়েলভ’য়ের অভাব কমতে পারে। অন্যথায় চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সাপ্লিমেন্ট নিতে হবে।

(২) ভিটামিন ই’র অভাবে ত্বক মলিন হয়ে যেতে পারে। এক্ষেত্রে খামারজাত পশুর মাংস, কাঠবাদাম, পালংশাক, উদ্ভিজ্জ তেল ইত্যাদি খাওয়ার মাধ্যমে শরীরে ভিটামিন ই’র অভাব মেটাতে পারেন।

(৩) সহজেই ত্বক কেটে গেলে বুঝতে হবে শরীরে ভিটামিন সি’র অভাব রয়েছে। সিট্রাস কা টকজাতীয় খাবার ভিটামিন সি’র অভাব মেটাতে পারে।

(৪) যথেষ্ট বিশ্রাম নেওয়ার পরও কিছু মানুষ সবসময় অবসাদগ্রস্ত থাকেন, যার কারণ হতে পারে ভিটামিন ডি’র অভাব। শীতকালে এই সমস্যা বেশি চোখে পড়ে।সমস্যা থেকে বেরিয়ে আসতে দুধ ও দুগ্ধজাত খাবার খেতে হবে। আর ভিটামিন ডি’র আদর্শ উৎস হল সূর্যের আলো। তাই সকালের রোদে হাঁটার অভ্যাস গড়তে হবে।

(৫) ফোলা চোখ নিয়ে সকালে ঘুম থেকে ওঠা৷ অনেকের কাছেই বিষয়টি অবহেলার৷ কিন্তু, এটিও হতে পারে একটি ইঙ্গিত৷ প্রতিদিন যদি একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হতে থাকে৷ তবে সাবধান হোন৷ ঘরোয়াভাবে এই অভাব পূরণ করতে খেতে পাবেন আলু, দই ইত্যাদি৷

(৬) চুলে মলিন ভাব দেখা দিলে ধরে নিতে পারেন বিটামিন বি’র অভাব রয়েছে। চুলের উজ্জ্বলতা ফিরে পেতে খাদ্যাভ্যাসে ডিম, হাঁস-মুরগি, গরু-খাসির মাংস ইত্যাদি যোগ করে দেখতে পারেন।

এখন জেনে গেলেন তো শরীরে ভিটামিনের অভাব বুঝবেন কিভাবে তবে শারীরিক সমস্যা প্রকট হলে কিংবা দীর্ঘদিন ধরে ভোগালে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

উপরে