ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন, ২০১৯
হঠাৎ করে শরীর কিংবা পা ফুলে গেছে বা পায়ে পানি জমেছে?

হঠাৎ করে শরীর কিংবা পা ফুলে গেছে বা পায়ে পানি জমেছে?

20fours Desk | আপডেট : ৩ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৭:৫৪
হঠাৎ করে শরীর কিংবা পা ফুলে গেছে বা পায়ে পানি জমেছে?

 

অনেকেরই পা ফুলে যায় বা পায়ে পানি আসার মত সমস্যা হয়ে থাকে। এই সমস্যায় সব থেকে বেশি ভুগে থাকেন নারীরা। বিশেষ করে মধ্যবয়স্ক নারীরাই এই সমস্যায় বেশি ভোগেন। বেশির ভাগক্ষেত্রে দেখা যায় যে, সন্ধ্যা বা রাতে  শরীর ভারী হয়ে আসে কিংবা পা ফুলে যাচ্ছে। অনেক সময় দেখা যায় এসমস্যা এতটাই প্রবল হয়ে যায় যে অনেকের হাতের আংটি আঁটসাঁট হয়ে যায় কিংবা পায়ের জুতো ছোট হয়ে যায়। আবার দেখা যায় যে, দিনেবেলা এসমস্যা কমতে শুরু করে। আসুন আজ জেনে নিই কেন এই সমস্যা হয়ে থাকে এবং এটি হলে আমাদের করণীয় কি।

কারণঃ

শরীর বা পা ফুলে যাওয়া কিংবা শরীরে পানি জমার জন্য বেশ কিছু কারণ রয়েছে। সাধারণত কিডনি, যকৃৎ, হার্টের বিভিন্ন সমস্যার জন্য এমন হয়ে থাকে। আবার মেয়েদের থাইরয়েডের জন্য এসমস্যা হয়ে থাকে। এছাড়াও লাসিকা গ্রন্থির সমস্যা, সংক্রমণ বা শিরার সমস্যার কারণেও কখনো কখনো শরীর বা পা ফুলতে পারে। একই সাথে কিছু ওষুধের পাশ্ব প্রতিক্রিয়ার ফলে শরীর বা পা ফুলে যায়। অনেক সময় কিন্তু পরীক্ষা-নিরীক্ষার পরও অনেকের শরীর বা পা ফোলার কোনো কারণ খুঁজে পাওয়া যায় না। চিকিৎসকেরা একে বলে থাকেন ইডিওপ্যাথিক ইডিমা বা কারণহীন পানি জমা। মহিলাদের ক্ষেত্রে সাধারণত এসমস্যা মাসিকের আগে কিংবা পরে এসমস্যা বেশি হয়ে থাকে।

করণীয়ঃ

১। শরীর ফুলে যাওয়ার অন্যতম কারণ হলো অতিরিক্ত ওজন। তাই এসমস্যা থেকে পরিত্রাণ পেতে অতিরিক্ত ওজন কমাতে হবে। নিয়মিত হাঁটা এবং ব্যায়ামের অভ্যাস করতে হবে। দীর্ঘসময় ধরে শুয়ে বসে থাকা কিংবা অসল সময় পার করলে এসমস্যা হয়ে থাকে।
 
২। দীর্ঘ সময় দাঁড়িয়ে বা বসে কাজ করলে কিংবা রান্না করলে শরীর ফুলে যেতে পারে। তাই শরীর ফুলে যাওয়ার সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে এসব কাজ এড়িয়ে চলুন। যদি এসব কাজ করতেই হয় তাহলে টানা কাজ না করে বিরতি নিয়ে কাজ করুন।

৩। শরীরে সোডিয়াম ক্লোরাইড বা লবণ বেশি হলে শরীর ফুলে যেতে পারে। এজন্য লবণ খাওয়া কমানো উচিত। বাড়তি লবণ বাদ দিয়ে পটাশিয়ামযুক্ত খাবার খেলে উপকার পাওয়া যায়। বিশেষ কলা, টমেটো, গাজর, ব্রকলি, বেগুন ইত্যাদিতে অনেক পটাশিয়াম আছে।

৪। অনেকেই আছেন বিকেলের বা সন্ধ্যায় খুব টাইট বা আঁটসাঁট জামা কাপড় পরে থাকেন কিংবা কেউ কেউ টাইট মোজা পরে থাকেন। এর ফলেও কিন্তু শরীর ফুলে যেতে পারে। তাই এসময় আঁটসাঁট জামাকাপড় না পরে একটু ঢিলা ঢোলা  জামা পরা উচিত।

৫। যদি হঠাৎ করে শরীর ফুলে যায় বা শরীরে পানি জমে যায় তাহলে অবশ্যই সবার আগে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হবে। অনেকেই শরীরের ফোলা কমাতে যেনতেন ওষুধ খেয়ে থাকেন। এর ফলে উপকারের চেয়ে বরং ক্ষতিই বেশি হয়ে

উপরে