ঢাকা, সোমবার, ২৫ মার্চ, ২০১৯
সকালে খালি পেটে পানি পান করার উপকারিতা

সকালে খালি পেটে পানি পান করার উপকারিতা জানেন তো?

20fours Desk | আপডেট : ২৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২১:২০
সকালে খালি পেটে পানি পান করার উপকারিতা জানেন তো?

প্রাকৃতিক ভাবে শরীরকে সুস্থ রাখতে হলে প্রতিদিন সকালবেলা ঘুম থেকে ওঠে খালি পেটে পানি পান  করা খুবই উপকারী। আমরা সবাই জানি পানির অপর নাম জীবন। সকালে ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে পানি খাওয়ার উপকারীতা আমরা অনেকে জানলেও অবহেলা করি। কিন্তু এ বিষয়ে অবহেলা কোনোভাবেই কাম্য নয়। তাই সুস্বাস্থ্য ধরে রাখতে হলে সকালে পানি পান করতে হবে। বৈজ্ঞানিক ভাবেও প্রমাণ হয়েছে যে বিভিন্ন ধরণের দৈহিক সমস্যার জন্য খালি পেটে পানি পান খুবই উপকারী। খালি পেটে পানি খাওয়ার কিছু বিস্ময়কর উপকারিতা জেনে নিন।

১। কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করেঃ

কোষ্ঠকাঠিন্য হওয়ার প্রধান কারণ হলো পানি কম খাওয়া। তবে কেউ যদি প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে পানি পান করে তাহলে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়। কারণ পানি পরিপাক প্রক্রিয়ায় বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

২। কিডনির পাথর প্রতিরোধঃ

প্রতিদিন সকালবেলা পানি খাওয়ার গুরুত্ব খুবই।  ঘুম থেকে জেগেই পানি পান করলে কিডনিতে পাথর হওয়া এবং মূত্রথলির ইনফেকশন হওয়া প্রতিরোধ করে। খালি পেটে পানি পান করলে পাকস্থলির এসিড পাতলা হতে সাহায্য করে। এই এসিড কিডনির পাথর সৃষ্টির জন্য দায়ী। পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করলে টক্সিনের দ্বারা সৃষ্ট বিভিন্ন ধরনের ব্লাডার ইনফেকশন থেকে রক্ষা পাওয়া যায়।

৩। বদহজম দূর করেঃ

প্রতিদিন সকালে খালি পেটে পানি খেলে বদহজম দূর হয়। এছাড়া অন্ননালিতে এসিড রিফ্লাক্স হলে বুক জ্বালাপোড়ার সমস্যায়  ভোগেন। তাহলে খালি পেটে পানি পান করলে এসিড নিচের দিকে চলে যায়।

৪। ওজন নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করেঃ

সকালে খালি পেটে পানি পান করলে পেট ভরার অনুভূতি হশ এবং ক্ষুধা কমে। যার ফলে বেশি খাওয়ার প্রবণতা কমে এবং ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

৫। ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পায়ঃ

খুব দ্রুত বা কম বয়সে বলিরেখার ছাপ পড়ে এবং ত্বকের ছিদ্রগুলো গভীর হয়। এতে চেহারা দেখতে খুবই খারাপ দেখায়। তবে এক গবেষণায় দেখা গেছে যে, খালি পেটে ৫০০ মিলিলিটার পানি পান করলে ত্বকে রক্ত প্রবাহ বৃদ্ধি পায় এবং ত্বক উজ্জ্বল হয়।

৬। বিপাকের উন্নতি ঘটেঃ

খালি পেটে পানি পান করলে বিপাকের হার ২৪ শতাংশ পর্যন্ত বৃদ্ধি পায়। বিপাকের হার বৃদ্ধি পাওয়ার অর্থ পরিপাক প্রক্রিয়ার ও উন্নতি হওয়া। আপনার পরিপাক যদি দ্রুত হয় তাহলে ডায়েট রুটিন অনুসরণ করাও সহজ হবে। ঘুম থেকে জেগেই পানি পান করলে কোলন পরিষ্কার থাকে।

উপরে