ঢাকা, বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৮
ভিটামিন সি

ভিটামিন সি-এর গুরুত্ব জানেন তো?

20fours Desk | আপডেট : ১২ নভেম্বর, ২০১৮ ১০:২১
ভিটামিন সি-এর গুরুত্ব জানেন তো?

ভিটামিন সি আমাদের সকলের পরিচিত। এটি আমাদের শরীরের জন্য অত্যান্ত প্রয়োজনীয় পুষ্টিগুণ উপাদান। আসলে ভিটামিন সি হলো L-ascorbic acid ( এল-অ্যাস্করবিক এসিড) কিংবা শুধু অ্যাস্করবেট  যা অ্যাস্করবিক এসিডের অ্যানায়ন।ভিটামিন সি দ্বারা মূলত এর একাধিক ভিটামারকে বোঝানো হয় যেগুলো প্রাণী ও উদ্ভিদের দেহে ভিটামিন সি এর মত কাজ করে। ভিটামিন সি পানিতে দ্রবণীয়। অর্থাৎ এটি আমাদের রক্তে খুব সহজেই মিশে যায় এবং কাজ শেষে প্রস্রাবের সাথে বের হয়ে যেতে পারে। আমাদের শরীর নিজে ভিটামিন সি তৈরি করতে পারে না। তাই দৈনন্দিন এর চাহিদা পূরণ করতে ও অন্যান্য শরীরবৃত্তীয় প্রয়োজনে বাইরের উৎস থেকে ভিটামিন সি গ্রহণ করতে হয়।

ভিটামিন সি-এর কাজঃ

ভিটামিন সি মানব দেহের জন্য অতি প্রয়োজনীয় একটি মাইক্রো নিউট্রিয়েন্ট। ভিটামিন সি- ত্বক, দাঁত ও চুল ভালো রাখতে সাহায্য করে। পাশাপাশি এটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে যা মানব দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে বাড়িয়ে হৃদরোগ, ক্যান্সারসহ বিভিন্ন রোগের ঝুঁকি হ্রাস করে। এছাড়াও শরীরে পর্যাপ্ত আয়রন শোষণে সহায়তা করে। সাধারণ সর্দি-কাশিতেও এই ভিটামিন বেশ উপকারী। তবে ঠাণ্ডায় আক্রান্ত হওয়ার আগ থেকে, পর্যাপ্ত ভিটামিন সি গ্রহণ করলে বেশি উপকার পাওয়া যায় বলে প্রমাণিত। এটি শরীরের হাড় ও কার্টিলেজ এর রক্ষণাবেক্ষণ ও পূনর্গঠনে সাহায্য করে।ভিটামিন সি মাড়ির সুস্থ্যতা বজায় রাখে, কোলাজেন প্রোটিন উৎপাদনে সাহায্য করে যা কিনা মাড়ি ও পেরিওডোন্টাল লিগামেন্ট এর মূল উপাদান। আর এই মাড়ি ও পেরিওডোন্টাল লিগামেন্ট দাঁতকে তার যথাস্থানে ধরে রাখে। দাঁতে প্ল্যাক কিংবা ক্যাল্কুলাস জমতে দেয় না।

ভিটামিন সি এর অভাবে কি হয়ঃ

ভিটামিন সি-এর অভাবে আমাদের বিভিন্ন রকম সমস্যা হতে পারে। যেমনঃ দাঁতের মাড়ি ফোলা, মাড়ি থেকে রক্ত পড়া, মুখের ঘা হওয়া বা আলসার, কোনো ক্ষতপূরণে দীর্ঘ সময় লাগা, ব্যাক্টেরিয়াল প্ল্যাক ও ক্যাল্কুলাস জমে দাঁত ক্ষয় হওয়া, স্কার্ভি, মাড়ির ব্যাথা, দাঁত নড়ে যাওয়া,রোগপ্রতিরোধ ক্ষমপ্তা কমে যাওয়া ইত্যাদি সমস্যা দেখা যেতে পারে।

কারা ভিটামিন সি-এর অভাবে ভোগেঃ

যেকোন বয়েসের যে কেউ এই ভিটামিনের অভাব হতে পারেন। সাধারণত আমাদের সমাজে নিম্নবিত্ত ও নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের লোকজনের মধ্যে ভিটামিনের সি-এর অভাব হতে পারে। এছাড়াও যাদের খাবার তালিকায় ফলমূল থাকে না, ধূমপায়ী, বয়স্ক মানুষদের ক্ষেত্রে, ক্যান্সার রোগীদের ক্ষেত্রে ভিটামিনের অভাব দেখা যায়।

ভিটামিন সি এর উৎসঃ

ভিটামিন সি-এর সবচেয়ে বড় উৎস হলো বিভিন্ন ফলমূল। বিশেষ করে টক জাতীয় ফলে ভিটামিন সি সব থেকে বেশি পাওয়া যায়। যেমনঃ লেবু, মাল্টা, স্ট্রবেরি, পেয়ারা, কিউয়ি, পেঁপে, ব্রকলি, কাঁচামরিচ, টমেটো, সীম, সবুজ শাকসবজি ইত্যাদিতে ভিটামিন সি পাওয়া যায়।

উপরে