ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর, ২০১৮
ফ্রেঞ্চফ্রাই

সবসময় ফ্রেঞ্চফ্রাই খাওয়া কি ঠিক?

20fours Desk | আপডেট : ১ নভেম্বর, ২০১৮ ১৩:৫৯
সবসময় ফ্রেঞ্চফ্রাই খাওয়া কি ঠিক?

বর্তমান সময়ে ফ্রেঞ্চফ্রাই ব্যাপকভাবে জনপ্রিয়। একদম বাচ্চা থেকে শুরু করে তরুণ, সবারই এটি অনেক পছন্দের। বিশেষ করে বাচ্চাদের কাছে অনেক এটি জনপ্রিয়। আমরা প্রায়সময়ই ফ্রেঞ্চফ্রাই খেয়ে থাকি। কিন্তু আমরা এই ফ্রেঞ্চফ্রাই সম্পর্কে কতটুকু জানি। এটা কতটুকু স্বাস্থ্যকর? আর এত বেশি বেশি ফ্রেঞ্চফ্রাই খেলে এর প্রভাব কি আমাদের উপর পড়ে না? আসুন জেনে নিই ফ্রেঞ্চফ্রাইয়ের ক্ষতিকর দিক গুলো এবং অতিরিক্ত ফ্রেঞ্চফ্রাই খেলে আমাদের কী কী ক্ষতি হতে পারে এ সম্পর্কে।

ফ্রেঞ্চফ্রাইয়ের ক্ষতিকর দিকঃ

১। ফ্রেঞ্চফ্রাই বেশি খেলে আমাদের শরীরে ট্রান্স ফ্যাটের মাত্রা বাড়তে শুরু করে। ট্রান্স ফ্যাটকে ভেঙে যেহেতু এনার্জিতে রূপান্তরিত করা যায় না, তাই তা শরীরের বিভিন্ন জায়গায় জমতে শুরু করে। আর এর ফলে আমাদের বিভিন্ন হার্ট ডিজিস, ক্যান্সার, ডায়াবেটিস এবং ওজন বৃদ্ধির মতো সমস্যা দেখা যায়। একই সাথে এই ফ্যাট আমাদের রক্তনালীতে জমে রক্তনালী ব্লক করে দিতে পারে।

২। ফ্রেঞ্চফ্রাই যেহেতু ডুবো তেলে ভাঁজা একটি খাবার তাই এটি খেলে আমাদের রক্তে কোলেস্টরলের মাত্রা অনেকে বেড়ে যায়। আর ফলে আমাদের হার্টের কর্মক্ষমতা কমতে শুরু করে। একই সাথে এটি খেলে আমাদের রক্ত দূষিত হয় যায়। ফলে আমাদের ত্বকের উজ্জ্বলতা কমে যায় এবং রক্তের বিভিন্ন অসুখ দেখা দেয়। এছাড়াও এটি আমাদের হাড়ের ঘণত্ব কমে আসে এবং হাড়ের গঠন দূর্বল হয়ে পড়ে।

৩। ফ্রেঞ্চফ্রাই খেলে আমাদের অতিরিক্ত ওজন বাড়ার সম্ভাবনা অনেক বেড়ে যায়। আমরা সকলেই জানি অতিরিক্ত ওজন মানেই টাইপ টু ডায়বেটিস, হাইব্লাড প্রেশার, স্ট্রোক, ক্যান্সারের মত মরণব্যাধি আমাদের শরীরে বাসা বাঁধে। একই সাথে অতিরিক্ত ফ্রেঞ্চফ্রাই খেলে আমাদের মেটাবলিক সিনড্রোম বেড়ে যায়। ফলে হৃদরোগের ঝুঁকি যেমন বাড়ে তেমনি অকালে বুড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে অনেক।

৪। ফ্রেঞ্চফ্রাই খেলে আমাদের শরীরের টক্সিক উপাদানের মাত্রা অনেক বেড়ে যায়। আর শরীরে টক্সিক উপাদানের মাত্রা বেরে গেলে আমাদের নানা রকম শারীরিক সমস্যা দেখা যায়। আবার এই ফ্রেঞ্চফ্রাই পুরাতন তেলে বারবার ভাঁজা হয়ে বলে আমাদের এসিডিটি কিংবা আলাসারের মত সমস্যা হয়ে থাকে। এর ফলে বুক জ্বালা-পোড়া করতে থাকে।

৫। ফ্রেঞ্চফ্রাই-এ থাকে অ্যাক্রিলামাইড নামে যৌগ। যা আমাদের ডিএনএ-এর জন্য মারাত্বক ক্ষতিকর। এছাড়াও এটি আমাদের স্নায়ুতন্ত্রের জন্য অনেক ক্ষতিকর এবং এটি আমাদের প্রজনন ক্ষমতা কমায়। একই সাথে ফ্রেঞ্চফ্রাই খেলে আমাদের শরীরের সচলতা কমে যায়।

উপরে