ঢাকা, রবিবার, ২১ জুলাই, ২০১৯
কোঁকড়া চুল নিয়ে খুব বিরক্ত?

কোঁকড়া চুল নিয়ে খুব বিরক্ত? জেনে নিন কিভাবে সোজা করবেন।

20fours Desk | আপডেট : ২৬ জানুয়ারি, ২০১৯ ১০:২৪
কোঁকড়া চুল নিয়ে খুব বিরক্ত? জেনে নিন কিভাবে সোজা করবেন।

চুল আমাদের শরীরের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। এর মাধ্যমেই আমাদের শরীরের বাহ্যিক সৌন্দর্য প্রকাশ পায়। আমাদের সবারই চুল রয়েছে এবং সবার চুল কিন্তু এক রকম নয়। আসলে বিভিন্ন কারনে আমাদের চুল বিভিন্ন রকম হয়ে থাকে। দেখা যায় কারও চুল কালো, আবার কারও বাদামি কিংবা সাদা। আবার কারও একদম সোজা, আবার কারও কোঁকড়া। আর অনেকেই তাদের চুলের ভিন্নতার জন্য অনেক দুঃখ করে থাকে। এই যেমন যাদের চুল কোঁকড়া তাদের আফসোসটা যেন একটু বেশিই হয়ে থাকে। অনেকেই কোঁকড়া চুলকে সোজা করার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করে থাকে। কিন্তু বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তারা কোঁকড়া চুলকে সোজা করতে ব্যর্থ হয়ে থাকেন। কিন্তু কিছু কাজ করলেই কিন্তু আপনি খুব সহজেই আপনার কোঁকড়া চুলকে সোজা করতে পারেন। কিভাবে? আসুন তবে আজ জেনে নিই কিভাবে আপনি আপনার চুলকে কোঁকড়া চুলকে সোজা করতে পারি।

কোঁকড়া চুল সোজা করতে যা করবেনঃ

১। আমাদের অনেকেরই চুল অনেক বেশি কোঁকড়া। আর এই কোঁকড়া চুল সোজা করতে কিন্তু ভিনেগার ভীষণ উপকারি। এজন্য হাফ লিটার পানিতে দুই টেবিল চামচ ভিনেগার ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। এরপর গোসলের আগে মাথায় ভালো ভাবে ম্যাসাজ করে ১ ঘন্টা রেখে দিতে হবে। তারপর গোসলের সময় ভালো করে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। নিয়মিত এভাবে পরিচর্যা করলে কোঁকড়া চুল অনেকটা সোজা হয়ে আসবে।

২। ভাতের মাড় আমরা সবাই চিনি। কিন্তু আমরা অনেকেই জানি না যে, কোঁকড়া চুল সোজা করতে ভাতের মাড় দারূন একটি সমাধান। এজন্য ভাতের মাড় ঠান্ডা করে মাথায় ঢেলে কিছুক্ষণ রেখে দিন। তারপর ভালোভাবে চুল উপর থেকে নিচের দিকে টেনে টেনে ম্যাসাজ করে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহার করলে অনেক উপকার মিলবে।

৩। নারিকেলের দুধে যে কন্ডিশনার থাকে তা চুলকে সোজা করতে সাহায্য করে। এজন্য এক কাপ তাজা নারিকেলের দুধে একটি লেবুর রস ভালো করে মিশিয়ে কয়েক ঘণ্টা ফ্রিজে রেখে দিন। ফ্রিজ থেকে বের করে চুলে আর মাথার স্কাল্পে এই মিশ্রণ ভালো মাখুন। ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর মাথায় একটি শাওয়ার ক্যাপ আটকে দিন। এর ওপর পাতলা তোয়ালে গরম পানিতে জড়িয়ে নিন। ৩০ মিনিট এভাবে রেখে শ্যাম্পু আর কন্ডিশনার দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। ভেজা অবস্থায় চুল আঁচড়িয়ে ফ্যানের হাওয়ায় শুকিয়ে নিন।

৪। কোঁকড়া চুল সোজা করতে ক্যাস্টর অয়েল অনেক উপকারি। আসলে ক্যাস্টর অয়েলে আছে চুলের গ্রোথ আর চুল সোজা করার  বিশেষ গুনাগুণ। এজন্য এ তেল চুলের স্কাল্পে ভালো ভাবে ম্যাসাজ করুন, তারপর চিরুনি দিয়ে চুল সোজা আঁচড়াতে থাকুন। এসময় চুলে হাই হিটে ব্লো ড্রাই এবং চুল পুরো শুষ্ক করে নিন। তারপর আধা ঘণ্টা একটি ভেজা তোয়ালে দিয়ে চুল জড়িয়ে রাখুন। এটা চুলকে অতিরিক্ত হিট থেকে নরম করবে আর স্ট্রেইটনেস বজায় রাক্তে সাহহায্য করবে।

৫। কোঁকড়া চুল সোজা করতে মুলতানি মাটি কিন্তু অনেক উপকারি। এজন্য এক কাপ মুলতানি মাটির সাথে একটি ডিমের সাদা অংশ এবং দুই চামচ চালের গুঁড়ো পানি দিয়ে ভালোভাবে এবং অনেক পাতলা করে মেশাতে হবে। তারপর এই মিশ্রণটি মাথার সমস্ত চুলে ভালোভাবে লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিতে হবে।  তারপর মোটা দাঁতের চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়াতে থাকুন। সপ্তাহে ২-৩ বার ব্যবহার করলে ধীরে ধীরে কোঁকড়া সোজা হয়ে আসবে।

সবাধানতাঃ

কোঁকড়া চুল শুকাতে হেয়ের ড্রায়ার ব্যবয়ার না করাই ভালো। এজন্য ফ্যানের বাতাসে চুল শুকাতে পারেন। টেবিল ফ্যান ছেড়ে বড় দাঁতের চিরুনি দিয়ে চুলগুলো টেনে আঁচড়াতে থাকুন। এতে চুল শুকাবে। চুলের কোঁকড়ানো ভাব কিছুটা হলেও কমে আসবে। আর রাতে ঘুমানোর সময় চুলে বেঁধে ঘুমাতে হবে। চুল ছেড়ে দিয়ে ঘুমালে আরো বেশি কোঁকড়া হয়ে যাবে।

উপরে