ঢাকা, সোমবার, ২৫ মার্চ, ২০১৯
বেডরুম

বেডরুম থেকে দূরে রাখবেন যে জিনিসগুলো

20Fours Desk | আপডেট : ১৩ মার্চ, ২০১৯ ১৫:০৬
বেডরুম থেকে দূরে রাখবেন যে জিনিসগুলো

সারাদিনের ক্লান্তি আমরা বাসায় ফিরি। আর বাসায় আমাদের কাছে সবথেকে পছন্দের জায়গা হলো আমাদের বেডরুম বা আমাদের শোবার ঘর। আমরা হয়তো অনেকেই জানি না আমাদের মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য একটি সুন্দর শোবার ঘর অত্যান্ত জররী। অনেকেই তাদের শোবার ঘরের ব্যাপারে অনেক উদাসীন হয়ে থাকে। কিন্তু একটি সুন্দর,গোছানো শোবার ঘর আমাদের অনেক কিছু পরিবর্তন করে দেয়। তাই আপনার শোবার ঘরটিকে গুরুত্ব দেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। অনেকের শোবার ঘরে নানারকম জিনিস থাকে। কিন্তু আপনাকে মাথায় রাখতে হবে বাসার অন্যান্য ঘর এবং আপনার শোবার ঘরের মধ্য কিন্তু অনেক পার্থক্য আছে। তাহলে আসুন আজ জেনে নিই আপনার বেডরুমে যেসব জিনিস রাখা একদমই উচিত না তা সম্পর্কে।

শোবার ঘরে যেসব করবেন না বা রাখবেন নাঃ

১। অনেকেই শোবার ঘরে টিভি, ল্যাপটপ, গেমিং সিস্টেম, হোম থিয়েটার সিস্টেম রাখেন। আসলে বেডরুমে এধরনের ইলেকট্রনিক জিনিসপত্র রাখা একদমই উচিত না। এসব ইলেকট্রনিক জিনিস আমাদের রাতের ঘুম যেমন নষ্ট করে তেমনি আমাদের মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য অনেক ক্ষতিকর। একই সাথে এসব ইলেকট্রনিক গ্যাজেটের পরে থাকার ফলে আমাদের পারিবারিক সম্পর্ক গুলো অনেক ফিকে হয়ে আসে। এসবে মুখ গুঁজে থাকতে থাকতে নিজস্ব সময় আর জায়গা টুকুও যে কমতে থাকে, এটা আমাদের মনে থাকে না। তাই চেষ্টা করুন দিনের শেষটা যেন মোবাইল ফোন কেড়ে না নেয়। তাই বেডরুমে এধরনের গ্যাজেট রাখবেন না।

২। আমাদের সারাদিন কাজেই কেটে যায়। সারাদিন কাজ করে রাতে আমরা বাসায় ফিরি বিশ্রামের জন্য, পরিবারের সাথে সময় কাটানোর জন্য। তাই অবশ্যই আপনার বেডরুমে অফিসের কাজ নিয়ে আসবেন না। আপনি বাসায় যে সময় থাকবেন সে সময় অফিসের কাজ না করাই ভালো। এই সময় আপনি আপনার পরিবারকে দিন। এতে আপনার যেমন ভালো লাগবে, তেমনি অন্যদেরও অনেক ভালো লাগবে। অফিসের কাজের চাপ বেডরুম পর্যন্ত না আসতে দেওয়াই ভালো। তাই বেডরুমে অফিসের কাজ একদম নয়।

৩। আমাদের অনেক রকম শখ থাকে। আর এর মধ্যে অন্যতম প্রাণি পোষা। আপনি যেকোনো প্রাণি পুষতেই পারেন। তবে রাতে খনোই আপনার পোষ্য প্রাণিটিকে আপনার শোবার ঘরে রাখবেন না। অনেকেই বলে থাকেন যে আমাকে ছাড়া আমার পোষ্য প্রাণি ঘুমাতে পারে না। এতা একদম ভুল একটি কথা। আপনি নিশ্চয় চাইবেন না সারাদিনের ক্লান্তির পর আপনার ঘুম আপনার পোষ্যর মাঝরাতে ডাকাডাকি বা পায়চারিতে ভেঙে যাক। আর তাছাড়াও এটি মোটেও স্বাস্থ্যকর নয়। তাই শোবার ঘরে কোনো পোষ্য প্রাণি রাখবেন না।

৪। আপনার যদি সিগারেট বা মদ্যপানের অভ্যাস থাকে তাহলে তা বাসার বাহিরেই সেরে ফেলা সবচেয়ে ভালো। অনেকেই শোবার ঘরেই সিগারেট পান করেন বা মদ্য পান করেন। যা একদমই উচিত না। আপনার এই বাজে অভ্যাস দেখে আপনার পরিবারের কেউ এই অবচেতন মনে এদিকে ঝুঁকতে পারে। এছাড়াও এই অভ্যাস হয়তো আপনার পছন্দের হলেও আপনার সঙ্গী বা সঙ্গিনীর পছন্দের নাও হতে পারে। তাই শোবার ঘরে ধুমপান বা মদ্যপান একদমই না।

৫। অনেকের বেডরুমে অনেক রকমের কৃত্রিম আলো থাকে।  মনে রাখবেন আপনার ড্রইং রুম আর বেডরুমের মধ্যে তফাৎ থাকা জরুরি। অতিরিক্ত আলো যাতে আপনার শান্তি বিঘ্নিত না করে, সে দিকে লক্ষ্য রাখুন। এছাড়াও নিজের বেডরুমকে যথাসাধ্য সাধারণ রাখুন। অযথা অতিরিক্ত আসবাবপত্র দিয়ে ঘর ভরিয়ে রাখবেন না। বিছানার উপর জামাকাপড়ের স্তূপ বা বই এর স্তূপ দিয়ে ভরিয়ে রাখবেন না। মনে রাখবেন এগুলোর জন্য ওয়ার্ড্রোব বা বুকশেলফ আছে। অনেক সময় হোম ডেলিভারির খাবার প্যাকেট খুলে আমরা আলসেমিতে বেডরুমে এনেই খেতে থাকি। বা কখনও চা বা কফি খেয়ে সেই কাপ ওখানেই ফেলে রাখি। এটা অস্বাস্থ্যকর একটি ব্যাপার। তাই খাবার পরে সেই প্লেট বা কাপ বা প্যাকেট বাইরে কিচেনে রেখে আসুন।

উপরে